নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই

0

একটা জমি ক্রয়ের পূর্বে সব থেকে মূল্যবান একটি ধাপ হলো জমির মালিকানা যাচাই। আপনি শুধুমাত্র জমির মালিকের নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই করতে পারবেন অনলাইনের মাধ্যমে। প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা পেতে হলে অবশ্যই কোনো জমি ক্রয়ের পূর্বে জমির মালিকের নাম এবং দাগ নাম্বার দেখে নিবেন।

আপনি যদি শুধুমাত্র জমির মালিকের নাম জানেন সে ক্ষেত্রে বিভাগ, গ্রাম, মৌজা  সিলেক্ট করে জমির মালিকের নাম দিয়ে জমির অরজিনাল মালিকানা যাচাই করতে পারবেন। এই কাজটি কিভাবে আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে করবেন এর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া এই লেখাটিতে বিস্তারিত আকারে বর্ণনা করা হয়েছে।

নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই

নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই করার জন্য সর্বপ্রথম https://eporcha.gov.bd/khatian-search-panel এই লিঙ্কে ভিজিট করে  যথাক্রমে  বিভাগ, জেলা, উপজেলা,  গ্রাম/ মৌজা সিলেক্ট করে, পর্চা টাইপ সিলেক্ট করে “মালিকানা নাম” বসিয়ে অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করে জমির মালিকানা যাচাই করা যাবে।

বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন প্রয়োজনে আমাদের জমি ক্রয় করার প্রয়োজন হয়। জমি ক্রয়ের পূর্বে সব থেকে মূল্যবান ধাপ হলো জমির মালিকানা যাচাই এবং এই জমির নামে কোন ধরনের মামলা আছে কিনা সেগুলো চেক করা। প্রযুক্তিগত উন্নয়নের ফলে আপনারা নিজের মোবাইল ফোন থেকে জমির মালিকের নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই করতে পারবেন এবং জমির খতিয়ান অনুসন্ধান করতে পারবো।

নাম দিয়ে জমির মালিকানা চেক করতে বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট land.gov.bd ব্যবহার করতে পারেন। এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো দিয়ে খুব সহজেই নাম দিয়ে জমির মালিক/দখলদারের নাম এবং দাগ নাম্বার যাচাই করতে পারবেন।

জমির মালিকানা যাচাইয়ের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস

ভূমি মন্ত্রণালয়ের e porcha অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জমির মালিকানা যাচাই করার জন্য আপনাকে প্রয়োজনীয় কিছু ডকুমেন্ট সাবমিট করতে হবে। নির্দিষ্ট জমি চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরে নির্দিষ্ট কিছু ডকুমেন্টস বা তথ্য প্রদান করতে হবে। তথ্যগুলো হলোঃ

  • জমির স্থান অনুযায়ী বিভাগ, জেলা, উপজেলা, মৌজা বা গ্রাম।
  • পর্চা টাইপ নির্বাচন করতে হবে। (বি এস, সি এস, বি আর এস, আর এস, এস এ, ইত্যাদি) অবশ্যই পর্চা নাম জানা থাকতে হবে।

যেহেতু আমরা নাম দিয়ে জমির মালিকের তথ্য যাচাই করবো যেহেতু জমির মালিকের নাম জানা থাকতে হবে।
বিভিন্ন ক্ষেত্রে নাম দিয়ে যাচাই করার সময় সমস্যা দেখা দেয়, সেক্ষেত্রে জমির খতিয়ান নং অথবা দাগ নং জানা থাকলে খুব সহজে যাচাই করতে পারবেন।

জমির মালিকানা যাচাই প্রক্রিয়া

সাধারণত আমরা দুইটি পদ্ধতিতে জমির মালিকানা যাচাই করতে পারে, সরাসরি ভূমি অফিসে গিয়ে ওখানে কর্মরত কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করে অথবা অনলাইনে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। বর্তমানে ভূমি অফিসে গিয়ে জমির মালিকানা যাচাই এর ক্ষেত্রে অনেক ঝামেলার  সম্মুখীন হতে হয়। তাই অনলাইনে আপনারা কিভাবে জমির মালিকানা যাচাই করবেন সেই পদ্ধতি নিচে উল্লেখ করা হয়েছে।

ধাপ-১

ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জমির মালিকানা যাচাই করার জন্য প্রথমে https://eporcha.gov.bd/ এই লিঙ্কে প্রবেশ করতে হবে। এরপরে নাগরিক কর্নার থেকে সরাসরি “খতিয়ান” মেনুতে প্রবেশ করুন।

নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই

ধাপ-২

এখান থেকে যথাক্রমেঃ

  • জমির স্থান অনুযায়ী বিভাগ ও জেলা নির্বাচন করুন।
  • এরপরে “খতিয়ান টাইপ নির্বাচন করুন” মেনু থেকে আপনাদের পর্চা টাইপ সিলেক্ট করে দিবেন।
  • জমির স্থান অনুযায়ী উপজেলা ও মৌজা সিলেক্ট করুন।
  • যেহেতু আমরা নাম দিয়ে জমির মালিকানা তথ্য যাচাই করব সেক্ষেত্রে “মালিকানা নাম” টিকমার্ক দিয়ে নিচে থাকা ফাকা বক্সে সঠিকভাবে জমির মালিক/ দখলদার এর নাম বসিয়ে দিন।
  • যথাক্রমে নিচে থাকা ক্যাপচা কোডটি পূরণ করে “অনুসন্ধান করুন” বাটনে ক্লিক করলে জমির মালিক/দখলদারের নাম এবং দাগ নাম্বার দেখা যাবে।

দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম

নাম দিয়ে যাচাইয়ের ক্ষেত্রে অসুবিধা

অনেক সময় নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই করার ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা যায়। এর একমাত্র কারণ হল হয়তো জমির মালিকানা নামে কোন ভুল আছে। নাম দিয়ে মালিকানা যাচাই এর ক্ষেত্রে বেশিরভাগ সময় এই সমস্যাটি দেখা যায়। হয়তো জমির মালিক/দখলদারের নাম অন্য কোন নামে আছে।

সে ক্ষেত্রে আপনারা জমির দাগ নং অথবা খতিয়ান নং দিয়ে খুব সহজে জমির মালিকানা যাচাই করতে পারবেন। দাগ নাম্বার দিয়ে ও খতিয়ান নং দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই করার ক্ষেত্রে শুধুমাত্র আপনারা যে পদ্ধতিতে জমির মালিকানা যাচাই করতে চান তার উপরে টিক মার্ক দিয়ে যথাক্রমে দাগ নম্বর ও খতিয়ান নাম্বার বসিয়ে দিবেন।

যেমনঃ আমরা দাগ নম্বর দিয়ে জমির খতিয়ান যাচাই করতে চাই সেক্ষেত্রে “দাগ নং” এর উপরে টিক মার্ক দিয়ে নিচের ফাকা বক্সে দাগ নাম্বার বসিয়ে দিয়ে সঠিক ভাবে ক্যাপচা কোড পূরণ করে “অনুসন্ধান করুন” বাটনে ক্লিক করুন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.