টিন সার্টিফিকেট তৈরী ও টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার নিয়ম ২০২২

0

টিন সার্টিফিকেট ( ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার) প্রয়োজন পড়ে না এমন কোনো মানুষ নেই। যারা দেশের বৈধ নাগরিক তাদের ট্যাক্স দেওয়া বাধ্যতামূলক। আর ট্যাক্স দেওয়ার জন্য হলেও টিন সার্টিফিকেট থাকাটা জরুরি। যখন আমাদের টিন সার্টিফিকেট এর প্রয়োজন পড়ে তখন আমরা 200 থেকে আড়াইশো টাকা খরচ করে অন্য কারো মাধ্যমে টিন সার্টিফিকেট তৈরী করে থাকি। আমরা অথচ আমরা অনেকেই জানি না মাত্র কয়েক মিনিট খরচ করেই ঘরে বসে সম্পূর্ণ ফ্রীতে একটি টিন সার্টিফিকেট তৈরি করতে পারি।

টিন সার্টিফিকেট তৈরী

টিন সার্টিফিকেট তৈরী করার নিয়ম

ধাপ ০১

টিন সার্টিফিকেট তৈরী করার জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে টিন সার্টিফিকেট রেজিস্টার এ ক্লিক করুন। এরপর রেজিস্ট্রেশন পেইজ আসার পরে নাম আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে রেজিষ্ট্রেশ্ করুন। টিন সার্টিফিকেট এভাবেই তৈরী করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশন করার জন্য এই লিঙ্ক এ জান https://secure.incometax.gov.bd/TINHome

 

টিন সার্টিফিকেট তৈরী

  • এখানে USER ID ঘরেতে আপনার নামের সাথে একটি সংখ্যা মিলিয়ে একটি শব্দ লিখবেন। মিনিমাম ওয়ার্ড ৮ টি হতে হবে
  • পাসওয়ার্ডের দুইটা ঘর পাবেন, একই পাসওয়ার্ড দুটি ঘরে দিবেন।
  • Security Option গিয়ে আপনার পছন্দ অনুযায়ী যে কোন একটি প্রশ্ন বাছাই করে সেটির answer লিখবেন পরের ঘরে।
  • Country থেকে বাংলাদেশে দিবেন
  • এরপরেই ই টিন অ্যাক্টিভেশন করার জন্য সচল মোবাইল নাম্বার দিবেন।
  • পরবর্তী ইমেইল এর ঘরে আপনার ইমেইল এড্রেস টা দিবেন।

নিচের বক্সে কয়েকটি কোড দেখতে পাবেন যা হলো ক্যাপচা। প্রত্যেকটা ওয়ার্ড Verification Letter ঘরে বসাতে হবে সবশেষে Register এ ক্লিক করবেন।

টিন সার্টিফিকেট তৈরী

এরপর উপর মত একটি পেজ পাবেন এখানে একটি OTP কোড দিতে হবে।
যেই মোবাইল নাম্বারটা আপনি কিছুক্ষণ আগে রেজিস্টার এর জন্য ব্যবহার করেছিলেন সেই নাম্বারে একটি এক্টিভেশন কোড পাবেন সেটি উক্ত বক্সে দিনেন এবং Active এ ক্লিক করবেন। তারপরে আপনার একাউন্টে রেজিস্ট্রেশন হয়ে যাবে।

টিন সার্টিফিকেট তৈরী

টিন সার্টিফিকেট তৈরী

সফলভাবে রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করার মাধ্যমে আপনি আপনার টিন সার্টিফিকেট তৈরি প্রথম ধাপ শেষ করবেন। এরপরে LOG IN পেইজ এ ক্লিক করে USER IDPASSWORD দিয়ে লগইন করে নিবেন. এরপরে একটু নিচো For TIN Registration /Re Registration Click Here এ ক্লিক করবেন।

আরো পডুনঃ

ধাপ ০২ঃ

TIN Certificate Registration পেইজে যাওয়ার পরে এমন একটি Form পাবেন

টিন সার্টিফিকেট তৈরী

  1. a; ) করদাতার ধরন সিলেক্ট করে আপনার পরিচিতি ধরন বাছাই করে নেবেন। যেমন ব্যক্তিগত হলে Individual আর কোম্পানি হলে Company b;) যদি a ঘরে আপনি Individual দিয়ে থাকেন তাহলে b ঘরে Individual -> Bangladesh-> Having NID অপশন সিলেক্ট করে নিবেন।
  2. রেজিস্ট্রশন এর ধরন অপশন থেকে New Registration ক্লিক করবেন।
  3. আয়ের প্রধান উৎস অপশনে আপনার ব্যাক্তিগত বা কোম্পানির আয়ের উৎস উল্লেখ করুন।
  4. Location Of Income Source অপশনে আপনার জেলা বাচাই করুন
  5. Businesses (Individual /Firm) বক্সে Location সিলেক্ট করে নিবেন
  6. এরপরে Location অপশন থেকে আপনার উপজেলা বাছাই করে নিবেন।

এর পরে GO TO Next বাটনে ক্লিক করে আপনার ব্যাক্তিগত তথ্য দেয়ার জন্য একটি ফরম পাবেন সেখানে আপনার নাম, পরিচয়, ঠিকানা, ভোটার আইডি নাম্বার জন্ম তারিখ ইত্যাদি উল্লেখ করবেন।

পরবর্তী ধাপে আপনার বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা দিবেন এবং NEXT ক্লিক করবেন। আপনার দেয়া তথ্য গুলো পরের FINAL PREVIEW তে দেখতে পাবেন। নিচের √ টিক মার্ক টি দিয়ে Submit Application এ ক্লিক করবেন। এর পরে আপনার ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার সঠিক থাকলে আপনার ছবি সহ আপনার যাবতীয় তথ্য দেখতে পাবেন। সম্পুর্নভাবে রেজিস্ট্রেশন করার মাধ্যমে আপনি আপনার টিন সার্টিফিকেট তৈরি করে ফেলতে পারবেন৷ পরবর্তী কাজ হলো টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড।

টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড

টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে Log In এ ক্লিক করে রেজিস্টার করা USER ID এবং PASSWORD দিয়ে লগইন করে বাম পাশে মেনুতে View Certificate নামের একটি অপশন পাবেন। সেখানে ক্লিক করলেই আপনার সার্টিফিকেটে দেখতে পারবেন। এরপর Save Certificate ক্লিক করলে টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড হয়ে যাবে।

টিন সার্টিফিকেট তৈরী

টিন সার্টিফিকেট যে যে কারনে লাগে

  1. ট্রেড লাইসেন্স নিতে
  2. গাড়ির মালিক হতে
  3. নিজের কোম্পানি নিবন্ধন করতে
  4. পণ্য আমদানির লাইসেন্স নিতে
  5. কোনো জমি, ফ্ল্যাট বা ভবন রেজিস্ট্রেশন করতে
  6. ক্রেডিট কার্ড পেতে
  7. নির্বাচনে প্রার্থী হতে
  8. সঞ্চয়পত্র কিনতে
  9. কোম্পানির শেয়ার কিনতে
  10. আইনজীবী, চিকিৎসক, প্রকৌশলীদের পেশার চর্চা করতে
  11. ব্যবসায়িক সমিতি বা কোনো নিবন্ধিত সংগঠনের সদস্য হতে
  12. সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার দরপত্রে অংশ নিতে
  13. রাইড শেয়ারিং কোম্পানিতে গাড়ি দিতে

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.