জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

1

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম বা কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায় এই বিষয়টি সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ ক্লিয়ারেন্স পাবেন আজকের এই পোস্টে। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম একেবারেই সহজ যা আপনি নিজে করতে পারবেন ঘরে বসে অথবা যে কোনো কম্পিউটার দোকান থেকেই অনলাইন করে নিতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন

আপনার কি হাতে লেখা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন সনদ রয়েছে?  সেই জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে চাচ্ছেন? জন্ম নিবন্ধন সনদ আমাদের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন থাকাটাও একপ্রকার বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। বিগত বছরগুলোতে জন্ম নিবন্ধন সনদ গুলো প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদ পৌরসভা সিটি কর্পোরেশনের রেজিস্ট্রিতে লিখে সংগ্রহ করা হত কিন্তু বর্তমানে ডিজিটাল দুনিয়া সবকিছু অনলাইন করার কারণে বাংলাদেশ সরকার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে যার কারণে আমাদের প্রত্যেককে জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন করা বাধ্যতামূলক।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার প্রয়োজনীয়তা

শিক্ষাঙ্গন থেকে শুরু করে একজন ব্যক্তির যাবতীয় বড় বড় অফিশিয়াল কার্যক্রমের জন্ম নিবন্ধন সনদ এর ব্যবহার প্রযোজ্য হয়ে থাকে।  যেহেতু জন্ম নিবন্ধন একজন ব্যক্তির প্রথম পরিচয় পত্র আর জন্ম নিবন্ধন এর সনদে একজন ব্যক্তির নাম পরিচয় দেয়া থাকে। এবং জন্ম নিবন্ধনে বর্তমানে জনসংখ্যার একটি নাম্বার থাকে যা ব্যবহার করে আপনি যে এদেশে জন্মগ্রহণ করেছেন সেটা নির্ধারণ করা হয় ,ডাটাবেজ থেকে তথ্য খুঁজে বের করা হয়।

প্রথম পরিচিতি পত্র হিসেবে সব কাজে জন্ম নিবন্ধন সনদ ব্যবহার করা হয়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি ,  ভোটার আইডি কার্ড,   ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট  তৈরি ,  জমি রেজিস্ট্রেশন,  চাকরি নিয়োগ , বিবাহ কাবিন নামা রেজিস্ট্রেশন সহ বিভিন্ন বড় বড় অফিশিয়াল কার্যক্রমের জন্ম নিবন্ধন সনদ থাকতে হয়।  সব কাজ যেহেতু অনলাইন ভিত্তিক বর্তমানে তাই জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার না থাকলে সহজে আপনার পরিচয় বের করা যাবে না যার কারনে অনলাইনের কার্যক্রমগুলো আপনার করা সম্ভব হবে না। আর তাই অনলাইন ভিত্তিক সব কাজ সম্পন্ন করার জন্য হলেও জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে হবে। আর জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে হলেও কিভাবে হাতের লেখা পুরাতন  জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায় বা জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম জানতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কিনা

আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কিনা এটি খুব সহজেই আপনি everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানতে পারবেন।  আর এটি জানতে হলে সর্বপ্রথম everify.bdris.gov.bd সাইটে প্রবেশ করে আপনার 17 সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং আপনার জন্ম তারিখ দিয়ে সার্চ করতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার আগেই আপনাকে এ বিষয়টি সিওর হতে হবে যে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা আছে কিনা।  যেহেতু পূর্বে জন্ম নিবন্ধন সনদের হিসাবগুলো রেজিস্ট্রিতে সংরক্ষণ করা হতো কিন্তু পরবর্তীতে সরকার সেটি ডাটা এন্ট্রি করে সব অনলাইন করে ফেলেছে তাই এর মাঝে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে থাকতেও পারে আবার নাও থাকতে পারে।  যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন থাকে তাহলে আপনার আর জন্মনিবন্ধন সনদ অনলাইন করার প্রয়োজন নেই।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

আপনার জন্ম নিবন্ধন যদি হাতে লেখা হয় এবং সেটি যদি অনলাইন করা না থাকে তাহলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে bdris এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আবেদনের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে পারবেন ।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন এর কাজটি আপনি যদি ভাল কম্পিউটার বা মোবাইল সম্পর্কে ধারনা থাকে তাহলে আপনি ঘরে বসে নিজেই করতে পারবেন।  অথবা কোন কম্পিউটার দোকান থেকেও জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। সবচাইতে সহজ হবে আপনার  ইউনিয়ন/ পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন/ তথ্য কেন্দ্র থেকে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করার জন্য সর্বপ্রথম bdris.gov.bd/br/application ওয়েব পেইজে প্রবেশ করতে হবে এরপরে জন্মস্থান নির্বাচন করে আপনারস্থানীয় ঠিকানা, বিভাগ, জেলা, উপজেলা এবং আপনার ভোটার এলাকার সহ ওয়ার্ড পর্যন্ত সিলেক্ট করে একে একে আপনার সব ব্যক্তিগত তথ্য দাখিল করতে হবে। অনলাইন জন্ম নিবন্ধনের আবেদন ফরম প্রথমে বাংলায় (ইউনিকোড) ও পরবর্তীতে ইংরেজিতে পূরণের পর প্রয়োজনীয় এডিট করে সংরক্ষণ বাটনে ক্লিক করতে হবে । সংরক্ষণ বাটনে ক্লিক করলেই আবেদন পত্রটি সংশ্লিষ্ট নিবন্ধক কার্যালয়েপৌঁছে যাবে। সংশ্লিষ্ট নিবন্ধক কার্যালয়ের ব্যক্তিবর্গ সেটিকে যাচাই-বাছাই করে আপনার আবেদনটি  অ্যাপ্রুভ করবে।

আপনি যখন  জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন আপনার ব্যক্তিগত সব তথ্য সঠিকভাবে নিবন্ধ করবেন তা না হলে পরবর্তীতে আপনার সেটা সংশোধন করতে বিভিন্ন ঝামেলা পোহাতে হবে।  আবেদন করার শুরুতেই আপনাকে প্রশ্ন করা হবে আপনি জন্মনিবন্ধনের টি কোথা থেকে সংগ্রহ করতে চান আপনার সুবিধামতো সেটি নির্বাচন করবেন।

কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায়

অনেকেই এই প্রশ্ন টাও করেন কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায়?  এর সঠিক জবাব হলো আপনাকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার জন্য জন্ম নিবন্ধন এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন করতে হবে। আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করবেন তখন আপনাকে একটি অনলাইন কপি দেওয়া হবে সেটি আপনি কম্পিউটার দোকান থেকে প্রিন্ট করে আপনার সংশ্লিষ্ট নিবন্ধকের কার্যালয় দাখিল করতে হবে।

এটি করার প্রয়োজন যদি আপনি ডিজিটাল তথ্য কেন্দ্রের বাইরে অন্য কোথাও থেকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করেন অথবা আপনি যদি নিজে আপনার আবেদন করেন।  যদি আপনি আপনার বড় সভা সিটি কর্পোরেশন অথবা ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য কেন্দ্র থেকে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করেন তাহলে সে ক্ষেত্রে প্রিন্ট কপি দাখিল করার প্রয়োজন নেই।

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

আপনি আপনার হাতের লেখা পুরাতন যেকোনো জন্ম সনদ অনলাইন করতে পারবেন নতুন করে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন এর মাধ্যমে ।এক্ষেত্রে বয়সভেদে আপনাকে জন্ম নিবন্ধন সনদ সংগ্রহের জন্য ২৫ থেকে ৫০ টাকা ফি প্রদান করতে হবে। পুরাতন জন্ম নিবন্ধন সনদ সাধারণত ১৬ সংখ্যার হয় । আর আপনি যখন পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করবেন তখন সেটি ১৭ সংখ্যার নাম্বারে পরিবর্তন হবে।

শেষকথা

যেহেতু জন্ম নিবন্ধন আমাদের প্রত্যেকের জন্য মূল্যবান একটি সনদ তাই অতি দ্রুত সম্ভব আপনারা এটি অনলাইন করে নিবেন এবং  অনলাইনকরার সময় অবশ্যই খেয়াল রাখবেন আপনার প্রদত্ত আপনার ব্যক্তিগত তথ্য যেন কোন ভুল না থাকে তাহলে পরবর্তীতে সংশোধন করতে হলে আপনাকে অনেক ঝামেলা পোহাতে হবে ।যেহেতু জন্ম নিবন্ধন সনদ ছাড়া কোনো কাজই সম্ভব নয় তাই যত দ্রুত সম্ভব আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন করে নিবেন।

1 Comment
  1. Kusal roy says

    ধন্যবাদ

Leave A Reply

Your email address will not be published.